Today: Mon, Jun 18, 2018

বাংলার টি.এন.আই সম্পর্কে

dgddgg

পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাঞ্চল এবং বাংলাদেশ যাকে সাধারন ভাবে উত্তরবঙ্গ বলা হয় হল ভারত উপমহাদেশের এক চিত্রোপম জায়গা। সাধারন ভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ এবং স্বাধীন দেশ বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলকে ভারতবর্ষের স্বাধীনতার আগে উত্তরবঙ্গ নামেই খ্যাত ছিল। এখন তা পশ্চিমবঙ্গের – উত্তরবঙ্গ এবং বাংলাদেশের – উত্তরবঙ্গ নামেই জানা যায়। ভারত তথা পশ্চিমবঙ্গে যে উত্তরবঙ্গ এলাকাটি পড়েছে তার মধ্যে বর্তমানের ৮টি জেলা এই উত্তরবঙ্গে রয়েছে। এই জেলাগুলি হল কুচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদা, দার্জিলিং এবং কালিম্পং। ঠিক তেমন ভাবেই বাংলাদেশের যে অঞ্চলগুলি বাংলাদেশের – উত্তরবঙ্গে রয়েছে তা হল রাজসাহি এবং রংপুর ডিভিশন যার মধ্যে রয়েছে বগুড়া, জয়পুরহাট, নাগাও, নাটোর, নবাবগঞ্জ, পাবনা, রাজশাহি, সিরাজগঞ্জ, দিনাজপুর, গাইবান্দা, কুরিগ্রাম, লালমনিরহাট, নিল্পামারি, পঞ্চগড়, রংপুর এবং ঠাকুরগাঁ জেলা। ঐতিহ্যগতভাবে পশ্চিমবঙ্গের – উত্তরবঙ্গ অঞ্চলকে তরাই, ডুয়ার্স এবং গৌর অঞ্চলে ভাগ করা হয়। ভারতের উত্তর বঙ্গ অঞ্চল কে বর্তমান প্রেক্ষাপটে একটা বৃহৎ সম্ভাবনাপূর্ণ অঞ্চল বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। বিশেষত অর্থনীতি, শিক্ষা, ব্যাবসা, খেলাধুলা, শিল্প ও সংস্কৃতি ইত্যাদি। যদি সংবাদ মাধ্যমের কথা ধরা যায় তাহলে এই মুহূর্তে দেখা যাচ্ছে অনেক বড় বড় সংবাদ মাধ্যম সংস্থা শিলিগুড়ি এবং আরও অন্য শহর ভিত্তিক নিজস্ব আঞ্চলিক কার্যালয় তৈরি করছেন বা করতে চলেছেন। টাইমসওফনর্থ.ইন আগেই ছিল এবার এল বাংলার টাইমসওফনর্থ.ইন সম্পূর্ণ বাংলা রূপ নিয়ে।

বলা যেতে পারে ইংরেজি টাইমসওফনর্থ.ইন নিউজ পোর্টাল হল উত্তরবঙ্গের প্রথম অনলাইন সংবাদ মাধ্যম যার সৃষ্টি ২০১১ সালে অর্থাৎ ২০১১ সালের ডিসেম্বর মাসের ২১ তারিখ। সেই সময় এটি টাইমসওফনর্থ.কম ডোমেইন ব্যাবহার করত। এখন বাংলার টাইমসওফনর্থ.ইন (bengali.timesofnorth.in) সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় তার নিউজ পরিবেশনায় ব্রতি। এই বাংলার টাইমসওফনর্থ.ইন বাঙালী নিউজ-দর্শকরা সব সংবাদ পাবেন তাঁদের মাতৃভাষায় অর্থাৎ বাংলায়। আশা করা যাচ্ছে এটি বাংলা নিউজ পোর্টাল জগতে এক ক্রান্তিকারি রূপান্তর ঘটাতে চলেছে। জন সাংবাদিকতাকেও বাংলার টাইমসওফনর্থ.ইন গুরুত্ব দিয়ে লাগু করতে চলেছে এই পোর্টালের মাধ্যমে। সুতরাং খবর এখন শুধু এক পেষে সম্প্রচার হবে না, হতে চলেছে ৩৬০ বিশ্লেষণমূলক এবং সততা যাচাই ভিত্তিক।