Today: Thu, Jul 19, 2018

কুচবিহারের শিতলকুচীতে স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে ধর্ষণ, আটক অভিযুক্ত

স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, শিতলকুচী, ৫ই জুলাই, ২০১৮: কুচবিহার জেলার শিতলকুচী ব্লকের বড় মধুসূদন গ্রামে স্বামীকে বেঁধে রেখে  চোখের সামনে গণধর্ষন হলেন এক গৃহবধূ। শিতলকুচী থানার পুলিশ দুই অভিযুক্ত কৃষ্ণ বর্মন ও টিংকু বর্মনকে গ্রেফতার করেছে। অভিযোগকারী স্বপ্না বর্মন (আসল নাম নয়) জানান গত ৩০শে জুন রবিবার রাত ৩টার সময় অভিযুক্তরা তাঁর ঘরে সিদ কেঁটে ঢোকে। ওই সময় ঘরে স্বামী ও তাঁর দুই বাচ্চা ঘরে ছিল। প্রথমে  তাঁর স্বামী পবিত্র বর্মনকে বেঁধে ফেলে অভিযুক্তরা৷ এরপর চলে নারকীয় অত্যাচার, তাঁর উপর চড়াও হয় এবং একে একে দুজনে তাকে ধর্ষন করে এবং ঘর থেকে বের হবার সময় তাদেরকে হুমকি দেয় এই ঘটনা কাউকে যাতে না বলে, কাউকে বললে সবাইকে মেরে ফেলবে। ঘটনা জানা জানি হতেই  গ্রামে বসে সালিশি সভা৷ জানাজানির মাত্রা বেশী হতেই এলাকার নেতা এবং গ্রামের মোড়লরা বিষয়টি সালিশি সভার মাধ্যমে মীমাংসার চেষ্টা করে। কিন্তু কোনো ভাবে মেনে নিতে পারছিল না গৃহবধূ। তাই প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়। আসামি কৃষ্ণ বর্মনকে পুলিশ গত মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করে এবং তাকে কোর্টে তোলা হলে পাঁচদিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয় কোর্ট। অপর এক আসামীকে গ্রেপ্তার করে আজকে মাথাভাঙ্গা এ.সি.জে.এম কোর্টে তোলা হবে। উল্ল্যেখ্য যে কুচবিহার জেলার শিতলকুচী ব্লকে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় চিন্তিত এলাকার মানুষ৷ তবে, পরপর একাধিক ধর্ষন জনিত ঘটনায় প্রশাসন নড়েচড়ে বসেছে।

ছবি: স্বপন রায় বীর (টি.এন.আই)

Be the first to comment on "কুচবিহারের শিতলকুচীতে স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে ধর্ষণ, আটক অভিযুক্ত"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*