Today: Thu, Jul 19, 2018

মেখলীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে যুবককে না মেরে পুলিশের হাতে তুলে দেয় জনতা

স্বপন রায় বীর (টী.এন.আই মেখলীগঞ্জ) । টি.এন.আই সম্পাদনা শিলিগুড়ি

বাংলাডেস্ক, টী.এন.আই, মেখলীগঞ্জ, ৫ই জুলাই, ২০১৮: ছেলে ধরা, শিশু পাচারকারী সন্দেহে অপরিচিত এক যুবককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে তুলে দিলো গ্রামবাসীরা৷ ঘটনা ময়নাগুড়ি ব্লকের সাপটিবাড়ি এলাকার৷ প্রথমে ময়নাগুড়ি ব্লকের সাপটিবাড়ি এলাকায় ছেলে ধরা সন্দেহে পাকড়াও করা হয় এক যুবককে, পরে ওই যুবককে মেখলীগঞ্জ থানার রানিরহাট এলাকায় পুলিশের কাছে নিয়ে আসে গ্রামবাসিরা৷ এরপর, মেখলীগঞ্জ এবং ময়নাগুড়ি দুই থানাতেই জানানো হয়৷ ঘটনাস্থলে দুই থানার পুলিশ আসলেও পরে ময়নাগুড়ি থানায় অভিযুক্তকে নিয়ে যাওয়া হয়৷

উল্লেখ্য, যে কয়েকদিন ধরে রানিরহাট এবং সাপটিবাড়ি এই দুই এলাকায় অনেক অপরিচিত মানুষ আসছে। এবার এই যুবককে ছেলেধরা সন্দেহে আটক করে স্থানীয়রা৷ প্রথমে জিজ্ঞাসাবাদ করাতে অসঙ্গতি পেয়ে চর থাপ্পড় শুরু হয়ে যায়। ঘটনাস্থলে জড়ো হয় কয়েকশত মানুষ৷ উত্তেজিত সাধারণ মানুষ ওই যুবককে মেখলীগঞ্জ এবং ময়নাগুড়ি পুলিশের সড়ক পথে চেকপোস্টে নিয়ে আসেন৷ সেখান থেকে অভিযুক্ত যুবককে পুলিশ নিয়ে যায়৷ উল্লেখ্য, দেশের বাকি অংশের মত  না গিয়ে, পুলিশের ওপর আস্থা রেখে যুবককে অক্ষত অবস্থাতেই পুলিশের হাতে তুলে দেয় স্থানীয়রা। সূত্রের খবর – সন্দেহজনক ওই অপরিচিত যুবক বিহারের বাসিন্দা৷ ঠিক কী কারণে এই এলাকায়  সে আসে তা এখনও জানা যায়নি৷

ছবি: স্বপন রায় বীর (টি.এন.আই)

Be the first to comment on "মেখলীগঞ্জে ছেলেধরা সন্দেহে যুবককে না মেরে পুলিশের হাতে তুলে দেয় জনতা"

Leave a comment

Your email address will not be published.


*